Accessibility links

Breaking News

কঠিন পরীক্ষার মুখোমুখি রাশিয়া


Russia Ukraine Tensions

ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার ব্যাপক সেনা সমাবেশের ফলে উদ্ভূত উত্তেজনা প্রশমনে অব্যাহত প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে গত ২৬ জানুয়ারি রাশিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জন সালিভান রুশ কর্তৃপক্ষের কাছে নেটোর প্রতি রাশিয়ার নিরাপত্তার সম্পর্কিত দাবির বিপরীতে একটি লিখিত প্রতিক্রিয়া উপস্থাপন করেছেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন পরে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, “রাশিয়া যদি মেনে নেয়, তবে এর মাধ্যমে একটি গুরুত্বপূর্ণ কূটনৈতিক পথ খুলে যাবে।

আমরা যে নথিটি সরবরাহ করেছি তার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র এবং আমাদের মিত্র ও অংশীদারদের মধ্যে রাশিয়ার ক্রিয়াকলাপের ফলে বিঘ্নিত নিরাপত্তা নিয়ে যে উদ্বেগ রয়েছে, তা সহ রাশিয়া যে উদ্বেগগুলো উত্থাপন করেছে তার একটি নীতিগত ও বাস্তবসম্মত মূল্যায়ন এবং ঐকমত্যের মাধ্যমে অর্জন সম্ভব, এ রকম কিছু নিজস্ব প্রস্তাব অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।”

যাই হোক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন সতর্ক করে দিয়ে বলেন, রাশিয়া যদি আগ্রাসন বেছে নেয়, তবে দেশটি “ব্যাপক পরিণতির” সম্মুখীন হবে। পররাষ্টমন্ত্রী ব্লিংকেন বলেন. ইউক্রেন এবং আমাদের ইউরোপীয় মিত্র ও অংশীদারদের সঙ্গে আলোচনার পর, যুক্তরাষ্ট্র “ইউক্রেনের প্রতিরক্ষাকে শক্তিশালী করতে এবং ভবিষ্যৎ রুশ আগ্রাসনের বিরুদ্ধে একটি দ্রুত, ঐক্যবদ্ধ প্রতিবন্ধক প্রস্তুত করে করছে”।

“এই সপ্তাহে ইউক্রেনের সম্মুখ যোদ্ধাদের জন্য প্রয়োজনীয় ২৮৩ টন গোলাবারুদ এবং অ্যান্টি-আর্মার সিস্টেম, অতিরিক্ত জ্যাভলিন ক্ষেপণাস্ত্র এবং অন্য প্রাণঘাতী নয়, এমন সরঞ্জাম নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামূলক সামরিক সহায়তার তিনটি সরবরাহ কিয়েভে পৌঁছেছে। আগামী দিনে আরও সরবরাহের আশা করা হচ্ছে। আমরা আগের বছরের তুলনায় গত বছরে ইউক্রেনকে আরও বেশি প্রতিরক্ষামূলক নিরাপত্তা সহায়তা দিয়েছি।”

উপরন্তু, যুক্তরাষ্ট্র তার মিত্রদের তাদের অস্ত্রবহর থেকে ইউক্রেনকে যুক্তরাষ্ট্রে উৎপাদিত সামরিক সরঞ্জাম সরবরাহ করার জন্য অনুমোদন দিয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনে বেশ কয়েকটি সামরিক হেলিকপ্টার সরবরাহ করার পরিকল্পনা করেছে। নেটো রেসপন্স ফোর্স সক্রিয় হলে সহায়তার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ৮ হাজার ৫০০ জন সেনা সদস্য প্রস্তুত রেখেছে। “আমরা আমাদের ইওরোপীয় মিত্র এবং অংশীদারদের সঙ্গে কঠোর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি যাতে মস্কোকে তার কর্মের জন্য জবাবদিহি করতে হয়”, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন বলেছেন।

ইউক্রেনের অর্থনীতিকে সমর্থন করা এবং রাশিয়া ইওরোপের সরবরাহ বন্ধ করলে বিকল্প প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহের সন্ধানসহ রাশিয়ার আগ্রাসনের ফলে অপেক্ষাকৃত ছোট পরিণতির প্রভাবগুলো প্রশমিত করতে যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত।

“গত সপ্তাহে আমাদের নেওয়া ব্যবস্থাগুলো মূলত রাশিয়ার বেছে নেওয়া। আমরা একটি কূটনৈতিক পথ তৈরি করেছি। রাশিয়া যদি আরও আগ্রাসন বেছে নেয়, তাহলে আমরা কঠোর পরিণামেরও ব্যবস্থা করেছি। আমরা ইউক্রেনের নিরাপত্তা ও অর্থনীতির জন্য আরও সমর্থন নিয়ে এগিয়েছি। আমরা এবং আমাদের মিত্র ও অংশীদারেরা এ ব্যাপারে ঐক্যবদ্ধ”।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন বলেছেন, “কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানাবে তা সিদ্ধান্ত নেওয়া রাশিয়ার ওপর নির্ভর করে। আমরা যেকোনো সিদ্ধান্তের জন্যেই প্রস্তুত।”

[এই সম্পাদকীয়তে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের নীতির প্রতিফলন রয়েছে]

XS
SM
MD
LG