Accessibility links

Breaking News

পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের চাবিকাঠি হলো স্বচ্ছতা


আর্মস কন্ট্রোল অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটি বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি, রাষ্ট্রদূত বনি ডেনিস জেনকিন্স। (ফাইল ফটো)

নেটো জোট ও ওয়ারসো চুক্তির মধ্যেকার স্নায়ু যুদ্ধের প্রধান একটি কারণ ছিল পরমাণু অস্ত্র প্রতিযোগীতার সম্প্রসারণ। ১৯৬০ সালের মাঝামাঝি থেকে শেষের দিক পর্যন্ত উত্তেজনা বৃদ্ধি পাওয়া, এবংঅনেকেই পরমাণু সংঘাত অনিবার্য বলে মনে করায়, জাতিসংঘ সমর্থিত নিরস্ত্রীকরণ সংক্রান্ত ১৮টি দেশের একটি কমিটি, সুইজারল্যান্ডের জেনিভায় নন-প্রলিফারেশন অব নিউক্লিয়ার ওয়েপনস, NPT (এনপিটি) বা পরমাণু অস্ত্র অপ্রসারণ চুক্তি স্বাক্ষর করেI ভারত, ইসরাইল, পাকিস্তান ও দক্ষিণ সুদান ছাড়া প্রতিটি দেশ এনপিটি-তে যোগ দেয়।

১৯৭০ সালে কার্যকরী হওয়া এই চুক্তির রয়েছে তিনটি স্তম্ভ বা বৈশিষ্ট, যেমন অস্ত্রের অপ্রসারণ, নিরস্ত্রীকরণ এবং পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার। সেই থেকে এনপিটি সদস্যভুক্ত দেশগুলি প্রতি ৫ বছরে একবার মিলিত হয়েছেন এবং ১৯৯৫ সালে তারা চুক্তিটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেনI।

জাতিসংঘের ফার্স্ট কমিটির ভাষণে, আর্মস কন্ট্রোল অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটি বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি, বনি ডেনিস জেনকিন্স বলেন, “৫০ বছরেরও আগে স্বাক্ষরিত এনপিটি, আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার ক্ষেত্রে অপরিবর্তনীয় অবদান রেখেছে। তবে এনপিটি'র এই দীর্ঘস্থায়ী সফলতাকে আমরা নিশ্চিত বলে ধরে নিতে পারি না। এর অব্যাহত সফলতার জন্য প্রয়োজন সার্বক্ষনিক নজরদারি ও প্রয়াস। আমরা তাই, এনপিটি'র প্রতি এবং পরমাণু অপ্রসারণ ব্যবস্থা সংরক্ষণ ও শক্তিশালি করার প্রতি আমাদের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করছি"।

রাষ্ট্রদূত জেনকিন্স বলেন, এনপিটি কার্যকর হওয়ার অনেক বছর পর, পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে বিশ্ব অনেকটা পথ পাড়ি দিয়েছে। তিনি বলেন, "১৯৬৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সক্রিয় মজুদে ছিল ৩১,২৫৫টি পরমাণু অস্ত্র, ২০১৭ সাল নাগাদ সে সংখ্যা দাঁড়ায় ৪০০০টির নীচে, যা আমাদের পরমাণু অস্ত্র ভাণ্ডারে ৮ গুনের বেশি হ্রাস। এই ঐতিহাসিক সফলতা আমরা অর্জন করেছি উত্তেজনা প্রশমন, ঝুঁকি কমানো, এবং আস্থার সঙ্গে আলোচনা করে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে আমাদের প্রতিশ্রুতির মাধ্যমে"।

এতদসত্ত্বেও, পরিপূর্ণ নিরস্ত্রীকরণের পথে আমাদের অনেকটা পথ এখনো যেতে হবে। নিরস্ত্রীকরণ ও স্বচ্ছতার প্রতিশ্রুতির প্রমাণ স্বরূপ, যুক্তরাষ্ট্র সরকার ৫ই অক্টোবর পারমাণবিক অস্ত্র মজুদের নতুন অশ্রেণীভুক্ত তথ্য প্রকাশ করেছে। রাষ্ট্রদূত জেনকিন্স বলেন, "এটি স্বচ্ছতার প্রতিশ্রুতির প্রতি আস্থার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের স্পষ্ট ও প্রকাশ্য মনোভাব প্রদর্শন"। স্বচ্ছতা, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় বিশ্বাস এবং আস্থা বৃদ্ধি ও কৌশলগত ভুল গণনার ঝুঁকি কমানোর মাধ্যমে, আমাদের পূর্বেকার সফলতাকে গড়ে তুলতে সাহায্য করে।

রাষ্ট্রদূত জেনকিন্স বলেন, "যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের সঙ্গে আমরা আমাদের পরমাণু মজুদের স্বচ্ছতা প্রদর্শন করে, পরমাণু সমৃদ্ধ অন্যান্য দেশকেও তা করার আহ্বান জানাচ্ছি। শান্তি ও আন্তর্জাতিক সুরক্ষায় অভিন্ন লক্ষ্য এগিয়ে নিতে আমরা জাতিসংঘের অন্যান্য সদস্য দেশ ও জাতিসংঘের সঙ্গে আমাদের সহযোগিতার অংশ পালনে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবো"।

(এই সম্পাদকীয়তে যুক্তরাষ্ট্র সরকারের নীতির প্রতিফলন রয়েছে)

XS
SM
MD
LG