Accessibility links

Breaking News

ইরানের গোয়েন্দা নেটওয়ার্কের সদস্যদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র


ফাইল ছবি, ব্রিটেন ভিত্তিক ইরানি সাংবাদিক মাসীহ অলিনেজাদ ৮ই অক্টোবর, ২০১৩, ছবি টোবি মেলভিল/রয়টার্স

যুক্তরাষ্ট্র ইরান সরকারের গোয়েন্দা কর্মীদের একটি নেটওয়ার্কের চার সদস্যের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে।একজন আমেরিকান নাগরিককে অপহরণ এবং জোরপূর্বক তাকে ইরানে ফেরত দেওয়ার চেষ্টার জন্য চারজন ইরানীর বিরুদ্ধে জুলাই মাসে অভিযোগ আনার পর নিউ ইয়র্কের দক্ষিণাঞ্চলীয় এটর্নির দপ্তর থেকে এই ঘোষণা দেয়া হয়I

অপহরণের যিনি লক্ষ্য ছিলেন তিনি নিজেকে একজন ইরানি আমেরিকান সাংবাদিক, অধিকার কর্মী এবং ইরানি শাসকদের সমালোচক মাসিহ আলিনেজাদ বলে পরিচিত হন। তিনি অন্যান্য ক্রিয়াকলাপের পাশাপাশি ভয়েস অব আমেরিকায় একটি জনপ্রিয় টেলিভিশন অনুষ্ঠানও সঞ্চালন করে থাকেনI

যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন অপহরণের চক্রান্তকে "মৌলিক আন্তর্জাতিক নীতিমালার চরম লঙ্ঘন" বলে অভিহিত করেছেন। তিনি একটি বিবৃতিতে উল্লেখ করেন যে, এই নির্দিষ্ট চক্রান্তের বাইরে, "যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান এবং প্রাক্তন কর্মকর্তাসহ অন্যান্য আমেরিকান নাগরিকদের আক্রমণের লক্ষ্যে পরিণত করার ক্ষেত্রে ইরানের চলমান আগ্রহ সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্র অবগত রয়েছে।"

শনাক্তকৃত চারজন ইরানি হলেন ইরানভিত্তিক জ্যেষ্ঠ গোয়েন্দা কর্মকর্তা আলিরজা শাহভারোগী ফারাহানি, যিনি গোয়েন্দা কর্মীদের একটি নেটওয়ার্কের নেতৃত্ব দেন এবং যাতে অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন আরও তিনজন নিষেধাজ্ঞা প্রাপ্ত ব্যক্তি ,যেমন মাহমুদ খাজেইন, কিয়া সাদেগী এবং ওমিদ নূর। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন উল্লেখ করেছেন যে এই নেটওয়ার্কটি কেবল ইরানি-আমেরিকান সাংবাদিককে অপহরণের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়, বরং যুক্তরাজ্য, কানাডা এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতে ইরানি ভিন্নমতাবলম্বীদের লক্ষ্যবস্তু করার দায়িত্বও তাদের ওপর দেয়া হয়েছিল I

এই ৪জন কর্মকর্তা ইরানের গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা মন্ত্রক বা এমওআইএস,’এর হয়ে কাজ করেছে। যুক্তরাষ্ট্র এই প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে এবং এটি হচ্ছে ইরানের সবচাইতে ভীতিপ্রদ প্রতিষ্ঠানগুলির অন্যতম।

যুক্তরাষ্ট্র অর্থ বিভাগ যেমন ইরানের গোয়েন্দা নেটওয়ার্ক "এমওআইএস'এর বিরুদ্ধে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা একটি পৃথক ঘোষণায় উল্লেখ করেছে, "এমওআইএস ইরানিদের বিরুদ্ধে ইরানি সরকারের নৃশংস মানবাধিকার লঙ্ঘনে মূল ভূমিকা পালন করেছে" এবং "এমওআইএসের হাতে ইরানের দমননীতি ইরানের সীমানা ছাড়িয়ে সম্প্রসারিত হয়েছে ইউরোপ ও অন্যত্র একই ধরণের ষড়যন্ত্রের মাধ্যমেI

চার জন ইরানি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে তাদের যে কোন সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হবে ; যুক্তরাষ্ট্রের কোনো নাগরিক তাদের সাথে ব্যবসা করতে পারবে না ; এবং বিদেশী আর্থিক প্রতিষ্ঠান যারা তাদের সাথে উল্লেখযোগ্য লেনদেনে জড়িত তাদের উপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হবেI

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিংকেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র “স্বাধীন সাংবাদিকদের ভয় দেখানো বা তাদের কণ্ঠ বন্ধ করার প্রচেষ্টা সহ্য করবে না। আমরা দোষী ব্যক্তিদের জবাবদিহি করব। এবং আমরা এখানে বা বিদেশে আমেরিকান নাগরিকদের উপর কোনো হামলা বরদাস্ত করব না"।

XS
SM
MD
LG